আগস্ট 18, 2022

বিএসই সেনসেক্স: সেনসেক্স হাজারে লাফিয়েছে

1 min read

বিশেষজ্ঞদের মতে, আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের নেতা জেরোম পাওয়েলের বার্তায় বিশ্বজুড়ে বাজার উঠেছে।

আমেরিকায় সুদের হার আবার বেড়েছে ৭৫ বেসিস পয়েন্ট। দুই মাসে 150 বেসিস পয়েন্ট বেড়েছে। চাহিদা কমাতে এবং মূল্যস্ফীতির হার বাড়াতে এই উদ্যোগ সে দেশে আর্থিক মন্দার আশঙ্কা বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে শেয়ারবাজারে ধস নামেনি। আমেরিকার সূচক বেড়েছে। বৃহস্পতিবার ভারতের সেনসেক্সও এক হাজার পয়েন্ট লাফিয়েছে। 56,857.79 এ থামে। নিফটি 17 হাজারের দোরগোড়ায় ফিরেছে। 1637.39 কোটি শেয়ার বিদেশি বিনিয়োগকারীরা কিনেছেন। ভারতীয় আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলি 600.29 কোটি টাকা ঢেলে দিয়েছে৷ ডলারের নিরিখে টাকার দামও অনেক বেড়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের নেতা জেরোম পাওয়েলের বার্তায় বিশ্বজুড়ে বাজার উঠেছে। তিনি বলেন, দাম বৃদ্ধি কমাতে তারা সুদের হার বৃদ্ধি অব্যাহত রাখবে। তবে হার নির্ধারণের সময় মূল্যবৃদ্ধির পাশাপাশি আর্থিক প্রবৃদ্ধির বিষয়টিও মাথায় রাখা হবে। বিনিয়োগকারীদের মতে, এটি ভবিষ্যতে সুদের হার বৃদ্ধির একটি ধীর গতির ইঙ্গিত। যার প্রভাব ভারতেও ছড়িয়ে পড়বে। এই প্রেক্ষাপটে, একদল বিশেষজ্ঞের মতে, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আগামী সপ্তাহে ক্রেডিট নীতি পর্যালোচনা করার সময় 35 থেকে 50 পয়েন্টের মধ্যে বৃদ্ধির হার রাখবে।

জেএম ফাইন্যান্সিয়ালের এমডি-সিইও অমিতাভ মহামতি বলেন, “আমরা জানতাম ফেড সুদের হার বাড়াবে। পরিবর্তে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির বিষয়ে পাওয়েলের বার্তা শেয়ার বাজারকে উৎসাহিত করেছিল। আশা করি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সুদের হার 35-50% বাড়াবে৷” ত্রিদিব ভট্টাচার্য, চিফ ইনভেস্টমেন্ট অফিসার, এডেলওয়েস অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টও দাবি করেছেন, “ভারতীয় বাজারগুলি মার্কিন সুদের হার বৃদ্ধির মন্দার ইঙ্গিত দ্বারা স্বস্তি পেয়েছে৷ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক করবে৷ এইবার সুদের হার ৫০ বেসিস পয়েন্টের বেশি বাড়াবেন না।” তবে মন্দার আশঙ্কায় জানুয়ারি-মার্চের পর এপ্রিল-জুন মাসে আমেরিকার জিডিপি সঙ্কুচিত হয়।এর হার ০.৯%।