জুলাই 1, 2022

ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

1 min read

পাবনার ঈশ্বরদীতে এক গৃহবধূকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক দুর্বৃত্ত। ওই গৃহবধূকে রক্ষা করতে গিয়ে তাঁর স্বামীও চাপাতির কোপে গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনশিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হামলাকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

দুর্বৃত্তের হামলায় নিহত ওই গৃহবধূর নাম শারমীন শিলা (৩২)। তিনি ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনশিদপুর গ্রামের রানাউর রহমানের স্ত্রী। শারমীনকে কুপিয়ে হত্যা এবং তাঁর স্বামীর ওপর হামলা চালানোর অভিযোগে আটক হওয়া ওই যুবকের নাম সুমন আলী (৩০)। তাঁর বাড়ি উপজেলার সরাইকান্দি গ্রামে।

স্থানীয় লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সরাইকান্দি গ্রামে নিজেদের তিনতলা একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় শারমীন তাঁর স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে থাকতেন। আজ সকাল ছয়টার দিকে তাঁর শ্বশুর ও শাশুড়ি ঘরের দরজা খুলে রেখে বাইরে হাঁটতে যান। স্বামী রানাউর রহমান ঘুমাচ্ছিলেন। এ সময় শারমীন বাড়ির ছাদে কাজ করছিলেন। এ সময় কৌশলে বাড়িতে ঢুকে শারমীনকে চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন সুমন আলী।

এ সময় শারমীন চিৎকার শুরু করলে তাঁর স্বামী রানাউর ছাদে ছুটে এসে তাঁর স্ত্রীকে রক্ষার চেষ্টা করেন। এ সময় সুমন তাঁকে চাপাতি দিয়ে কোপাতে থাকেন। একপর্যায়ে হামলাকারীর সঙ্গে রানাউরের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। রানাউর ওই ব্যক্তিকে ছাদ থেকে ফেলে দিয়ে চিৎকার করতে থাকেন। পরে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আহত অবস্থায় হামলাকারীকে আটক করেন। পরে রানাউর রহমানকে তাঁর স্বজনেরা উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।