সেপ্টেম্বর 28, 2022

ভারতীয় রেলওয়ে: পুরানো টিকিটের ডিসকাউন্ট কি আর ফিরে আসবে না? প্রশ্ন তুলেছেন সাংসদ দেব, উত্তর দিলেন রেলমন্ত্রী

1 min read

করোনা পরিস্থিতি আগে উল্লেখ থাকলে রেলওয়েতে মোট ৫৩ ধরনের ছাড় পাওয়া যেত। হিসাব অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি ছাড় পান প্রবীণ নাগরিকরা।

করোনা পরিস্থিতিতে রেল পরিষেবা বন্ধ হয়ে গেলে যাত্রী সংখ্যা কমাতে আরও কিছু সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল। ট্রেন ভাড়ার অধিকাংশ ছাড় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখন রেলওয়ে রাজ্যাভিষেকের সময়কালের পুরানো নিয়মে ফিরেছে তবে বন্ধ থাকা ছাড়গুলি পুনরায় চালু করা হয়নি। রেলওয়ে সূত্র আগে বলেছিল যে এই ধরনের ছাড় ফেরত নাও হতে পারে।

কিন্তু এটা কি সত্যি? সংসদে এমন প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ দীপক অধিকারী ও অভিনেতা দেব। তার কাছে মোট তিনটি প্রশ্ন ছিল। এক, বয়স্ক যাত্রীদের টিকিটে ছাড় দেওয়া বন্ধ করল রেল? দুই, এটা কি শেষ হবে? তিন, স্থায়ী না হলে পুরনো ডিসকাউন্ট সিস্টেম কবে ফিরবে?

রেলমন্ত্রী অশ্বিন বৈষ্ণো একই সঙ্গে দেবের তিনটি লিখিত প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন। একটি লিখিত উত্তরে, অশ্বিন বলেছিলেন যে 20 শে মার্চ, 2020 এ, রেলওয়ে জরুরি পরিস্থিতির প্রোটোকল মেনে মাত্র চারটি ক্ষেত্রে টিকিটে ছাড় চালু করেছিল। পরে দেখা যায়, করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের তুলনায় ২০২০-২১ অর্থবছরে রেলের রাজস্ব আয় কমেছে। এ অবস্থায় বয়স্ক যাত্রীসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই। একইসঙ্গে রেলমন্ত্রী বলেন, কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও রেলওয়ে ১১টি ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধী, রোগী ও শিক্ষার্থীদের টিকিটে ছাড় দিচ্ছে।

যাইহোক, আমরা যদি আগে করোনা পরিস্থিতির কথা বলতাম, তাহলে রেলের জন্য মোট 53টি ছাড় থাকত। হিসেব অনুযায়ী, প্রবীণ নাগরিকরা টিকিটে সবচেয়ে বেশি ছাড় পান। রেলওয়ের নিয়ম অনুসারে, এই ছাড় দেওয়া হয়েছিল শুধুমাত্র 58 বছরের বেশি বয়সী মহিলাদের এবং 60 বছরের বেশি বয়সী পুরুষদের জন্য। মহিলারা 50 শতাংশ এবং পুরুষরা 40 শতাংশ ছাড় পাবেন। যা এখন বন্ধ।

এই ছাড় কবে থেকে আবার চালু করা হবে বা আদৌ চালু হবে না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। গত ডিসেম্বরে রেলমন্ত্রী সংসদে জানিয়েছিলেন, বয়স্কদের জন্য এই ছাড় এখন চালু করা হচ্ছে না। মার্চেও একই উত্তর দেওয়া হয়েছিল। শিগগিরই এই সিদ্ধান্ত বদলানোর সম্ভাবনা নেই বলে রেল সূত্রে খবর। আগামী দিনে বয়স্কদের ছাড় পাওয়া যাবে না।